মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

একনজরে সোনাহাট ইউনিয়ন

উত্তরাঞ্চলের একবারে সর্বশেষ প্রান্তে কুড়িগ্রাম জেলার ভূরুঙ্গামারী উপজেলার সর্বকনিষ্ট ইউনিয়ন হল বঙ্গ সোনাহাট ইউনিয়ন। কাল প্রক্রিয়ার আজ বঙ্গ সোনাহাট ইউনিয়নটি শিক্ষা, সংস্কৃতি, ধর্ম, খেলাধুলা এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে তার নিজস্ব স্বকীয়তা সুন্দর ভাবে পালন করে আসছে।

 

1)    ইউনিয়নের নাম: ১০নং বঙ্গ সোনাহাট ইউনিয়ন পরিষদ।

2)   আয়তন : ৩৮.৩৫ বর্গকিলোমিটার।

3)   লোকসংখ্যা : ৩৬,৬৯৫ জন প্রায় (২০১১ সালের আদম শুমারী)

4)   গ্রামের সংখ্যা : ১৫ টি।

5)   মৌজা সংখ্যা : ০৩ টি।

6)   হাট বাজার সংখ্যা : ০৪ টি।

7)   উপজেলা থেকে দুরত্ব: ১০ কিলোমিটার।

8)   শিক্ষার হার: ৫৬% (আদম শুমারী ২০১০ অনুযায়ী)।

9)   সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংখ্যা: ০৭ টি।

10)  রেজি: প্রাথমিক বিদ্যালয় সংখ্যা: ০১ টি।

11)  উচ্চ বিদ্যালয় সংখ্যা: ০২ টি।

12)  ডিগ্রী কলেজ: ০১ টি।

13)  মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংখ্যা: ০২টি।

14)  মাদ্রাসা সংখ্যা: ০১ টি।

15) ঐতিহাসিক স্থান: ০১ টি।

16) গুরুত্বপুর্ন দর্শশনীয় স্থান: ০৬ টি।

17) নব গঠিত পরিষদের বিবরণ:

       18) গ্রাম সমুহের বিবরণ: গ্রাম সংখ্যা ১৪ টি।

19) ইউনিয়ন পরিষদের জনবল:

নির্বাচিত ইউপি সদস্য: ১২ জন।

সচিব: ০১ জন।

গ্রাম পুলিশ: ৯ জন।

20) এক নজরে বঙ্গসোনাহাট ইউনিয়নের পানি পায়খানার অবস্থা:

বঙ্গসোনাহাট ইউনিয়নের মোট পরিবারের সংখ্যা ৪৯৭৪,মোট জনসংখ্যা ১৯৮৬২। যেখানে পুরুষ ১০০৮০ জন, নারী ৯৭৮২ জন ও প্রতিবন্ধীব্যক্তির সংখ্যা ২৬জন। অথনৈতিক শ্রেণীবিন্যাস অনুসারে মোট জনসংখ্যার ৩৩% হত-দরিদ্রসহ মোট ৭৯% মানুষ দরিদ্র সীমার নিচে বসবাস করে, মধ্যবিত্ত ও ধনী শ্রেণীর মানুষ যথাক্রমে ১১% ও ১০%। স্বাস্থ্যসম্মত পায়খানা ব্যবহার করে এমন পরিবারের সংখ্যা মাত্র ১৫০৪ টি যেখানে ১৬৬৬ টি পরিবার অস্বাস্থ্যসম্মত পায়খানা ব্যবহার করে আর এই ইউনিয়নে কোন পরিবার খোলা জায়গায় মল ত্যাগ করে না। যৌথ ভাবে পায়খানা ব্যবহার করে মোট ১৮০৪ টি পরিবার। ইউনিয়নে মোট ১৩% পরিবার নিরাপদ পানি ব্যবহার করে অর্থাৎ গোড়া পাকা নলকুপের পানি পান করে আর ৮৭% পরিবার অনিরাপদ পানি পান করে অর্থাৎ গোড়া কাঁচা নলকুপের পানি পান করে। মোট ব্যবহারকারীর ৩৭% পরিবার যৌথ ব্যবস্থাপনায় পানির উৎস ব্যবহার করে।


 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter